মেসিকে ফেরানোর প্রথম পদক্ষেপ সেরে ফেলেছে বার্সা

0
22

স্পোর্টস ডেস্কঃ শেষ কিছু দিন ধরেই চলছে গুঞ্জনটা। বার্সেলোনার লিওনেল মেসিকে ফেরানোর গুঞ্জনটা মাথাচাড়া দেয় গেল মাসে সভাপতি হোয়ান লাপোর্তা আর কোচ জাভি হার্নান্দেজের কথায়। দু’জনেই জানান, মেসিকে ফেরাতে চান ক্লাবে। সেই প্রক্রিয়াটা বার্সা শুরু করে দিয়ে তার প্রথম পদক্ষেপটা সেরেও ফেলেছে বলে জানিয়েছে এল নাসিওনাল।

পিএসজিতে মেসির চুক্তি বাকি আছে আরও এক বছর। তবে সেটা আরও একটা বছর বাড়িয়ে ২০২৪ সাল পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার সুযোগও আছে দুই পক্ষের সামনে। মেসি অবশ্য এখনো কোনো বিষয়েই সিদ্ধান্ত নেননি বলেই শোনা যাচ্ছে আর্জেন্টাইন সংবাদ মাধ্যমে। 

মেসি তার সব সিদ্ধান্ত নেবেন ২০২২ বিশ্বকাপের পর। তবে বার্সেলোনা তাদের সাবেক অধিনায়ককে দলে ফেরানোর বড় পদক্ষেপই নিচ্ছে। মেসির সঙ্গে আলোচনা শুরু হয়ে গেছে, সেটা জানা গিয়েছিল আগেই। এবার স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, তাকে ফেরাতে দলে বড় একটা পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে ক্লাবটি।

স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যমের খবর, শেষ দিকে লিওনেল মেসির সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হয়েছিল দলটির সেন্টারব্যাক জেরার্ড পিকের। মূল কারণ ছিল সাবেক সভাপতি হোসে মারিয়া বার্তোমেউর সঙ্গে আঁতাত গড়ে পিকের নতুন চুক্তি বাগিয়ে নেওয়া। যেখানে সতীর্থদের সঙ্গে পুরোপুরি উল্টোটাই বলেছিলেন পিকে। স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যম স্পোর্ত গেল জানুয়ারিতে জানিয়েছিল, সেই থেকে মেসির সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ পিকের, যা সময়ের সাথে সাথে আরও খারাপের দিকেই গড়িয়েছে। 

সে কারণে মেসি আর তাকে বার্সেলোনাতেই দেখতে চান না। আগামী গ্রীষ্মকালীন দলবদল মৌসুমে দলে ফেরানোর কথা যখন তার সঙ্গে সারছে বার্সা, তিনি তখন শর্ত বেধে দিলেন, তার ফেরার সময় পিকে কোনোভাবেই থাকতে পারবেন না বার্সেলোনায়।

সেই কাজটা ইতোমধ্যেই শুরু করে দিয়েছে বার্সেলোনা। চলতি মৌসুমে দুই ম্যাচ শেষে একটি ম্যাচেও মাঠে নামতে পারেননি পিকে। জাভিও ইশারায় বুঝিয়ে দিয়েছেন, রক্ষণভাগের শেষ বিকল্প হিসেবে তাকে বিবেচনা করেন, যা ছিল মেসির প্রধান চাওয়াগুলোর একটি। এমন পরিস্থিতিতে তিনি বার্সেলোনা ছাড়ার ভাবনাই ভাবছেন বলে শোনা যাচ্ছে। তবে সেটা শেষমেশ হয় কি না, সে প্রশ্নের উত্তরের জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরও একটা মৌসুম।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে